ইআরপি সফটওয়্যার সেবা প্রদানে ‘প্রাইডসিস আইটি লিঃ’ এর সাফল্য

14125059_o

‘প্রাইডসিস’ আইটি লি: বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিষ্ঠান যারা সম্পূর্ণ দেশীয় মেধা/রিসোর্স ব্যাবহার করে ই.আর.পি‘র মত একটি কম্পলেক্স সিষ্টেম সলিউশন তৈরী করেছে। আমাদের দেশের মেধাবী সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, ডেভেলপারদের একসাথে করে ‘প্রাইডসিস’ ই.এর.পি ডেভেলপ করা হয়েছে। একটা সময় বাংলাদেশের স্থানীয় এবং বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানগুলো বিদেশী সফটওয়্যার ব্যবহার করতে বাধ্য ছিল।

দেশীয় সফটওয়্যারের প্রতি তাদের আস্থা কম ছিল, কিন্তু ‘প্রাইডসিস’ তার ই.আর.পি সার্ভিস দিয়ে সে আস্থার জায়গাটা তৈরী করতে নিরোলস পরীশ্রম করে যাচ্ছে। এবং এরই মধ্যে ‘প্রাইডসিস’ বাংলাদেশের ই.আর.পি সেক্টরে সাফল্য পাওয়া শুরু করে দিয়েছে। ইতিমধ্যে বাংলাদেশের প্রথম সারির গার্মেন্টস ম্যনুফাকচারার (পোষাক  প্রস্তুতকারক)  মাহমুদ গ্রুপের ১০ টি কোম্পানীকে পুরোপুরি আটোমেশনের মাধ্যমে ই.আর.পি সেবা সম্পূর্ন করা হয়েছে। যা স্থানীয় সফটওয়্যার কোম্পানীদের মধ্যে সেরা সাফল্য। এবং ই.আর.পি সার্ভিস এর দিক দিয়ে সবচেয়ে বড় অংকের চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে (দেশীয় সফটওয়্যার সার্ভিসের ভিত্তিতে)। মাহমুদ গ্রূপ সাম্প্রতিক সময় প্রাইডসিসের সাথে ৫ কোটি টাকার তিন বছর মেয়াদী একটি সার্ভিস লেভেল এগ্রিমেন্ট স্বাক্ষর করেছে, যা এই পর্যন্ত বাংলাদেশের করা স্থানীয় কোন ই.আর.পি প্রোভাইডারের করা সবচেয়ে বড় অংকের সাভিস সংক্রান্ত চুক্তি।

বাংলাদেশের নামকরা ট্রেডিং কোং ‘ডাইসিন’ ক্যামিকেল লিঃ নামে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় প্রিন্টিং ও ফেব্রিক্র মেনুফ্যাকচারিং এর কেমিকেল ও মেশিনারী সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ‘প্রাইডসিস’ এর ই.আর.পি ব্যবহার করে সফল ভাবে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। ই.আর.পি সফটওয়্যার ছাড়াও ‘প্রাইডসিস’ বাংলাদেশের ই-কমার্স খাতে নতুন নতুন উদ্যোগ নেয়ার জন্য ‘প্রাইডসিস’ ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে নতুন একটি প্রতিষ্ঠান শুরুর পরিকল্পনা করছে।
এবার আসা যাক টেলিফোন সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের এর দিকে। বাংলাদেশে গ্রামীণফোন, বাংলালিংক, এয়ারটেল সবগুলো টেলি কোম্পাণী যেখানে বিদেশী নামী দামী কোম্পানীর ই.এর.পি ব্যবহার করছে, সেখানে আমাদের দেশীয় মোবাইল কোম্পানী একমাত্র টেলিটক ‘প্রাইডসিস’ ই.আর.পি ব্যবহার করে গ্রাহক সেবা নিশ্চিত করছে। ‘প্রাইডসিস’ ই.আর.পি একমাত্র ই.আর.পি সেবা দান কারী প্রতিষ্ঠান যারা স্থানীয় ভাবে সম্পূর্ণ দেশের মেধাকে কাজে লাগিয়ে দেশীয় টেলি কোম্পানীকে সেবা প্রদান করে যাচ্ছে।

বিদেশী বড় বড় প্রতিষ্ঠানের সাথে প্রতিযোগীতা করে সফলভাবে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এ প্রসঙ্গে ‘প্রাইডসিস’ এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর মনোয়ার ইকবাল বলেন “শুরু থেকে আমাদের একটাই প্রচেষ্ঠা ছিল, দেশীয় ই.আর.পি বাজারে, দেশীয় প্রতিষ্ঠান গুলির বিদেশী ই.আর.পি’র প্রতি আগ্রহ কমিয়ে দেশীয় ই.আর.পির প্রতি আত্ববিশ্বাসি করা’’ তিনি আরও বলেন “প্রাইডসিস একটি দেশীয়  সফটওয়্যার প্রস্তুতকারক ও সেবা দান কারী প্রতিষ্ঠান যেখানে তরুন মেধাবীদের মেধাকে কাজে লাগিয়ে বিশ্বমানের ই.এর.পি সেবা প্রদান করে থাকি। আমি গর্বের সাথে বলতে পারি বিদেশী নামীদামী প্রতিষ্ঠানের সেবার সাথে প্রতিযোগীতা করে আমরা টিকে আছি এবং সফল ভাবে এগিয়ে যাচ্ছি।”
দেশী মেধা ব্যবহারের কারনে একদিকে যেমন বিপুল পরিমান বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় হচ্ছে অন্যদিকে কর্ম সংস্থান হচ্ছে বাংলাদেশী মেধাবীদের। আইটি খাতে ‘প্রাইডসিস’ এখন পর্যন্ত যে ভূমিকা পালন করেছে তা বর্তমান সরকারের রুপকল্প ২০২১ এর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ন। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে ‘প্রাইডসিস’ এর ভূমিকা উল্লেখযোগ্য।

Translate »